ডায়েটের যে ভুলগুলো আপনাকে ব্যর্থ করে দিচ্ছে!

ডায়েটের যে ভুলগুলো আপনাকে ব্যর্থ করে দিচ্ছে!

ডায়েটের যে ভুলগুলো আপনাকে ব্যর্থ করে দিচ্ছে!

ওজন হ্রাস করার জন্য মেনে চলছেন শত শত নিয়ম। ব্যায়াম করে ঘাম ঝরাচ্ছেন,
করছেন ডায়েট। এত নিয়মের মাঝে কিছু নিয়ম আছে যা আপনার ডায়েট প্ল্যানকে
নষ্ট করে দিচ্ছে। এই ভুলগুলো ডায়েটের সময় আমরা সবাই করে থাকি। এমনই
কিছু ভুল সম্পর্কে জেনে নিন এই ফিচার থেকে।

১। সকালের নাস্তায় হালকা কিছু খাওয়া

অনেকে ডায়েট করার জন্য সকালের নাস্তায় কিছু খান না। আবার খেলে খুব
হালকা কিছু খাবার খেয়ে থাকেন। আর সবচেয়ে বড় ভুলটি করে থাকেন। সকালে
নাস্তায় পুষ্টিকর কার্বোহাইড্রেটযুক্ত খাবার খাওয়া উচিত। যা সারাদিনের এনার্জি
দিয়ে থাকবে। সকালের নাস্তায় যোগ করতে পারেন ডিম, পনির, দুধ অথবা
সবজি এবং ফল।

২। দুপুরের খাবারে সবজি না খাওয়া

দুপুরের খাবারে প্রচুর পরিমাণে সালাদ, সবজি খাওয়ার চেষ্টা করুন। সবজিতে
পানি এবং হজমযোগ্য ফাইবার থাকার কারণে এটি অনেকক্ষণ পেট ভরিয়ে রাখার
পাশাপাশি পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে থাকবে। তাই স্যান্ডউইচ, স্যুপ, সুশি
অথবা হালকা খাবারের সাথে সালাদ এবং সবজি যোগ করুন।

৩। অতিরিক্ত কফি পান

আপনি হয়তো কফি পান করার অভ্যাস রয়েছে। কিন্তু অতিরিক্ত চিনিযুক্ত কফি
পান করা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। কফিতে থাকা উপাদান ঘুম ভাব দূর করে কাজে
অগ্রহী করে তোলে। কিন্তু এই উপাদানটি আপনার খাওয়ার আগ্রহ কমিয়ে ক্ষুধা নষ্ট
করে দেয়। যা ওজন বৃদ্ধি করে থাকে। দিনে এক থেকে দুই কাপ দুধ দিয়ে তৈরি
কফি খাওয়া যেতে পারে। এর বেশি নয়। কফির পরিবর্তে আপনি গ্রিণ টি
অথবা ব্ল্যাক কফি পান করতে পারেন।

৪। দেরী করে রাতের খাবার খাওয়া

আমরা সাধারণত রাত ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে রাতের খাবার খেয়ে থাকি। অনেক
সময় তা রাত ১১টা হয়েও থাকে। অথচ ওজন নিয়ন্ত্রণ এবং রুচি নিয়ন্ত্রণ করার
জন্য ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা পর্যন্ত না খেয়ে থাকা প্রয়োজন। তাই রাতের খাবার রাত
৮টা থেকে ৯টার মধ্যে খেয়ে নেওয়া উচিত।

৫। ক্যালরি বাদ দিয়ে দেওয়া

ওজন কমানোর জন্য অনেক সময় খাদ্যতালিকা থেকে ক্যালরিযুক্ত খাবার বাদ
দিয়ে থাকেন। কিন্তু ক্যালরিযুক্ত খাবার আপনাকে কাজের শক্তি দিয়ে থাকে। তাই
প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় অত্যন্ত ১০% উচ্চ ক্যালরিযুক্ত খাবার রাখুন।

৬। অতিরিক্ত ডায়েট করা

অতিরিক্ত ডায়েট করা অথবা অতিরিক্ত ব্যায়াম কোনটাই স্বাস্থ্যের জন্য ভাল নয়।
আপনি যখন টানা ৭ দিন ডায়েট করবেন তখন আপনার মেটাবলিজমের হার অনেক
কমে যায়। এছাড়া কার্বোহাইড্রেটের অভাবের কারণে অনেক সময় আপনাকে
অসুস্থ করে থাকে। তাই টানা চারদিন ডায়েট করার পর পঞ্চম দিন ডায়েটে
বিরতি নিন এবং কিছু স্বাস্থ্যকর ফ্যাট খাবার গ্রহণ করুন।

৭। খাবারে প্রোটিন কম থাকা

খাবারে যাতে পর্যাপ্ত প্রোটিন থাকে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আপনার পেশীকে
সঠিক আকারে রাখতে প্রোটিন অপরিহার্য। গবেষকরা জানান, পর্যাপ্ত প্রোটিন আপনার
৩৫% পর্যন্ত ক্যালরি ক্ষয় করতে পারে।

৮। অ্যালকোহল গ্রহণ করা

অ্যালকোহল আপনার শরীরের চর্বি পোড়াতে বাধা দেয়। দিনে অত্যধিক
অ্যালকোহল আপনার ৭৩ শতাংশ পর্যন্ত ক্যালরি ক্ষয় হতে দেয়না।

এছাড়া অনেকে দ্রুত খাবার খেয়ে থাকেন, মূলত খাবার ২০ মিনিট চিবিয়ে খাওয়া উচিত।

ওজন কমাতে ৬টি অভ্যাস ত্যাগ করুন – Bangla Health Tips

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *