ঢাকার আশেপাশে ঘুরে বেড়ানোর মতো ১০টি জায়গা

ঢাকার আশেপাশে ঘুরে বেড়ানোর মতো ১০টি জায়গা

ঘুরতে কে না ভালোবাসে! শীতে ছুটির দিনগুলোতে পরিবার বা বন্ধু-বান্ধব নিয়ে বেড়াতে যাবার কথা ভাবছেন? যারা ১ দিনের জন্য ঢাকার আশেপাশে ঘুরে বেড়ানোর মতো জায়গা খুঁজছেন, তাঁরা জেনে নিন ঢাকা বিভাগের আশেপাশের জেলাগুলোতে অবস্থিত এমন ১০টি মনোরম জায়গার নাম ও প্রয়োজনীয় তথ্য ।

জল জঙ্গলের কাব্য

জল জঙ্গলের কাব্য গাজীপুর জেলার পুবাইলে অবস্থিত । নগর জীবন থেকে বের হয়ে খোলামেলা গ্রামীণ পরিবেশ উপভোগ করতে চাইলে এর থেকে সুন্দর জায়গা আর হয় না । প্রায় ৯০ বিঘা জায়গার উপর গড়ে উঠেছে এটি । সকালের নাস্তা, দুপুরের খাবার, বিকেলের স্ন্যাক্স ও রাতের খাবার সহ জনপ্রতি খরচ পড়বে ৩,০০০ টাকা।

সোনারগাঁও লোকশিল্প জাদুঘর

সোনারগাঁও জাদুঘর ঢাকার অদূরে নারায়নগঞ্জ জেলার পানাম নগরে অবস্থিত একটি অন্যতম দর্শনীয় স্থান । এখানে শীতকালে মাসব্যাপী বসে লোকশিল্প মেলা । প্রতি শুক্রবার থেকে বুধবার সকাল ১০.০০ থেকে ৫.০০ পর্যন্ত জাদুঘরের গেট খোলা থাকে । টিকেটের মুল্য ও কম, জনপ্রতি ২০ টাকা মাত্র ।

পদ্মা রিসোর্ট

পদ্মা রিসোর্ট ঢাকা বিভাগের মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলায় পদ্না নদীর পাড়ে অবস্থিত । নদী পাড়ের ও কাঁশফুলের অপূর্ব দৃশ্য যারা খুঁজে বেড়ান, তাঁরা চাইলেই ঢু মেরে আসতে পারেন এখান থেকে । গাড়ি নিয়ে ঢাকা থেকে ২ ঘন্টার মধ্যেই পৌছে যাবেন । কটেজের ভিতরে আছে রেস্টুরেন্ট, রিভার ক্রুজ ও খেলাধূলা করার বিশাল জায়গা ।

ড্রিম হলিডে পার্ক

ড্রিম হলিডে পার্ক ঢাকার পাশেই নরসিংদী জেলায় অবস্থিত অন্যতম থিম পার্ক । পরিবার পরিজনদের সারাদিন হৈচৈ আর আনন্দে মাতামাতি করতে অথবা পিকনিকের অায়োজন করতে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন এখান থেকে । রাতে থাকার জন্য রয়েছে রিসোর্টের ও সুব্যবস্থা আর প্রবেশমুল্য জনপ্রতি ২০০ টাকা করে ।

বালিয়াটি জমিদার বাড়ি

ঢাকা থেকে ৩৫ কিলোমিটার দূরে মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া উপজেলায় বালিয়াটি গ্রামে বালিয়াটি জমিদার বাড়ি অবস্থিত । এই জমিদার বাড়ির বিশাল সব স্থাপনা আপনাকে নি:সন্দেহে অবাক করবে । প্রতি সপ্তাহে রোববার ও সোমবার অর্ধবেলা ছাড়া প্রতিদিনই সকাল ৯.০০টা থেকে বিকাল ৫.০০ টা পর্যন্ত গেট দর্শনার্থীদের জন্য গেট উন্মুক্ত থাকে ।

যমুনা রিসোর্ট

যমুনা রিসোর্ট টাঙ্গাইল ও সিরাজগঞ্জ জেলার মাঝে যমুনা সেতুর কাছেই অবস্থিত । পর্যটকদের থাকার ব্যবস্থা ছাড়াও ভিতরে রয়েছে সুইমিং পুল, খেলাধুলার ব্যবস্থা, জিম ও অন্যান্য সুবিধা । খরচ পড়বে জনপ্রতি ৪০০০ টাকা করে । এছাড়া, বিভিন্ন উৎসব-অনুষ্ঠানেও রিসোর্টটি বিভিন্ন ধরনের প্যাকেজের সুবিধা দিয়ে থাকে ।

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বাঘের বাজার থেকে মাত্র ৫ কিলোমিটার পশ্চিমে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কটি অবস্থিত। পার্কের ভিতরের অংশকে আবার ৫টি অংশে ভাগ করা হয়েছে – কোর সাফারি, সাফারি কিংডম, বায়োডাইভার্সিটি পার্ক, এক্সটেনসিভ এশিয়ান ডাইভার্সিটি পার্ক ও বঙ্গবন্ধু স্কয়ার। প্রবেশমুল্য জনপ্রতি ৫০ টাকা।

নিকলী হাওর

খোলামেলা পরিবেশে স্নিগ্ধ প্রকৃতির ছোঁয়া পেতে ঘুরে আসতে পারেন কিশোরগঞ্জের নিকলী হাওর থেকে । ঢাকা থেকে বাসে বা ট্রেনে যেতে পারেন কিশোরগঞ্জ শহরে, সেখান থেকে সিএনজি তে করে নিকলি ঘাট । ঘাট থেকে নৌকা ভাড়া করে ঘুরে দেখুন হাওর । মনে রাখবেন, বর্ষার শেষ দিকে হাওর ভ্রমনের উপযুক্ত সময় ।

নকশী পল্লী

নকশী পল্লী পূর্বাচর বালু নদীর পাশে অবস্থিত । অনেকে এটিকে ঘোরার জায়গা মনে করলেও নকশী পল্লী মূলত: একটি রেস্তোরা । তবে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কাছে এসে খাবার উপভোগ করা আপনাকে নি:সন্দেহে দিবে এক অসাধারণ অনুভূতি । তাছাড়া সময় পেলে বোটে করে ঘুরে বেড়াতে পারেন নদীতে ।

জিন্দা পার্ক

কম সময়ে ও কম খরচে ঘুরে আসার জন্য যেতে পারেন পূর্বাচল হাইওয়ের কাছেই নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জে অবস্থিত জিন্দা পার্ক। ঢাকা থেকে দুরত্ব মাত্র ৩৭ কিলোমিটার । খাওয়া দাওয়ার জন্য পার্কের ভিতরেই রেস্টুরেন্ট আছে । এছাড়া, রাতে থাকার জন্যেও আছে গেস্ট হাউজ । প্রবেশ টিকেট জনপ্রতি ১০০ টাকা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *