রেসিপিঃ ব্রোকেন গ্লাস পুডিং

রেসিপিঃ ব্রোকেন গ্লাস পুডিং

রেসিপিঃ ব্রোকেন গ্লাস পুডিং

এই পুডিং এর জন্য অনেক অনুরোধ পেয়েছি।যারা ডিম এর পুডিং খেতে পারেন না ডিমের গন্ধ লাগে বলে তাদের জন্য এই পুডিং।

রেসিপি ও ছবিঃ মুনিরা হক মুনিয়া

কি কি লাগবেঃ

জেলাটিন বা জেলো পাউডার : ৩প্যাকেট(যারা একটা ফ্লেভার দিয়ে করতে চান তারা একটা প্যাকেট নিতে পারেন।আমি এখানে তিন টা ফ্লেভার এর নিয়েছি।তিন কালার এর,প্যাকেট এর ভিতরে যে ছোট প্যাকেট এ জেলাটিন থাকে তা থেকে হাফ প্যাকেট করে নিয়েছি প্রতিটা থেকে।প্যাকেট এ জেলাটিন কিভাবে বসাবেন সেই নিয়ম দেয়া থাকে।সেভাবে করবেন)
চাইনা গ্রাস বা আগার আগার: একি জিনিস।(আমি ৫গ্রাম চাইনা গ্রাস নিয়েছি)
দুধ: ২কাপ
চিনি: ৩টে,চামচ বা নিজের টেস্ট মত(চাইলে কন্ডেন্স মিল্ক ও দেয়া যায়)

প্রণালীঃ

প্রথমে জেলাটিন গুলু কে সেট করতে হবে।দুই কাপ পানি ফুটাতে দিন।তিন টা বাটি তে প্যাকেট এর অর্ধেক জেলাটিন পাউডার ঢেলে দিন।এবার গরম পানি জেলাটিন পাউডার এর মধ্যে দিয়ে ভাল করে চামচ দিয়ে মিশিয়ে ফ্রিজের নরমাল চেম্বার এ রেখে দিন।

এখন একটি বাটিতে চায়না গ্রাস গুলু ছোট ছোট টুকরা করে নিন।এই টুক্রার মধ্যে গরম পানি দিতে হবে।দিয়ে আধা ঘন্টার জন্য এক পাশে রেখে দিন জেন চায়না গ্রাস নরম হয়।জারা আগার আগার দিয়ে করবেন তারা আগার আগার পাউডার দুধে দিয়ে দিবেন।আমি চায়না গ্রাস দিয়ে করেছি তাই গরম পানিতে এটা কে ভিজিয়ে রেখেছি।

এবার দুই কাপ দুধ চুলায় বসিয়ে জাল দিন।এই দুধে পরিমান মত চিনি মিশিয়ে দিন।যারা কন্ডেন্স মিল্ক দিবেন তারা চিনি দিবেন না।চিনি দুধের সাথে ভাক ভাবে মিশে গেলে এর মধ্যে ভিজিয়ে রাখা চায়না গ্রাস বা আগার আগার পাউডার দিয়ে অনবরত নাড়তে থাকুন।এই অবস্থায় নাড়া বন্ধ করা জাবেনা।যখন দেখবেন দুধের মিস্রন ঘন হয়ে গেছে তখন চুলা থেকে নামিয়ে নেড়ে নেড়ে ঠান্ডা করে নিন।

এবার জেলাটিন গুলু কে বার করে ইচ্ছে মত টুকরা করে নিন।যে বাটিতে পুডিং বসাবেন তাতে জেলোর টুকরা গুলু দিয়ে এতে দুধের মিস্রন দিয়ে ফ্রিজের নরমাল চেম্ভার এ রেখে দিন ২/৩ঘন্টা।এর ভিতর পুডিং জমে যাবে।তইরি হয়ে গেল ব্রোকেন গ্লাস পুডিং

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *